“সংসারের ইনিংস ধরে খেলতে হয়” ভিরাটকে আজহার

|

বহুল আলোচিত বিবাহের পর প্রসংশা আর শুভেচ্ছা বানীতে ভাসছেন ভিরাট-আনুশকা দম্পতি। অনেকে আবার অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞান থেকে পরামর্শও দিয়ে দিচ্ছেন। আর দেবেনই না কেন? ক্রিকেটার আর বলিউড তারকার এমন জুটি এই তো প্রথম নয়। তেমনই একজন ভারতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার মোহাম্মদ আজহারউদ্দিন। বলিউড অভিনেত্রী সঙ্গীতা বিজলানির সাথে তার বিয়ে নিয়ে নব্বুইয়ের দশকে কম হৈ চৈ হয়নি।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার-এর সঙ্গে ফোনালাপে সাবেক এই অধিনায়ক বেশ কিছু টিপ্‌স দিলেন ভারতীয় দলের বর্তমান অধিনায়ক কোহলিকে। তাদের নিয়ে দেশজুড়ে যে মাতামাতি হচ্ছে, সেটাকে স্বাভাবিক মন্তব্য করে তিনি বলেন, কোলাহল সামলে ওরা  সফল ভাবে এগিয়ে যাবে। বলেন- ক্রিকেট ও সিনেমা ভারতের সবচেয়ে জনপ্রিয় দুটি জগত।  সে ক্ষেত্রে সামলে চলাটা খুবই কঠিন। তবে সব সময় সম্ভব না হলেও মাথা ঠান্ডা রাখা খুব জরুরি। সেলিব্রিটি হওয়াতে বিরাট ও আনুশকাকে সামলাতেই হবে সে ধকল।

তবে আনুশকাকে বেশি কিছু না বললেও বিরাটকে দিলেন কিছু টিপস। বললেন-  জনতার এই বেড়ে যাওয়া আগ্রহটা ও ক্রিকেট দু’দিকে ভারসাম্য রাখতে নজর দিতে হবে।  ক্রিকেট মাঠ যেমন গুরুত্বপূর্ণ, তেমনই বা তার চেয়েও হয়তো বেশি গুরুত্বপূর্ণ জীবনের বাইশ গজ। দু’টো দিকই সামলাতে হবে। কোনওটাকে হেলাফেলা করা যাবে না।

ক্রিকেট না সংসার, কোনটা কঠিন প্রশ্ন করা হলে সাবেক অধিনায়ক বলেন- সংসার অনেক কঠিন। ক্রিকেট মাঠের চ্যালেঞ্জগুলোকে বিরাটের খুব ছোটখাটো মনে হতে পারে এখন। সংসারের ইনিংসটা অনেক ধরে-ধরে খেলতে হয়। আসলে আমরা তো তরুণ বয়স থেকে বাইরে বাইরেই থাকি ক্রিকেট খেলার জন্য। ঘরে সময় দেওয়ার ব্যাপারটা হয়ই না। বিয়ের পরে সেটা করলে চলবে না। দু’টো জগতের মধ্যে ভারসাম্য রেখে চলতে হয়।

যমুনা অনলাইন -এফআর





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply