মাসাকাদজার শেষটা হলো স্বপ্নের মতো

|

ক্যারিয়ারের শেষটা স্বপ্নের মতো হয়েছে হ্যামিল্টন মাসাকাদজার। উড়তে থাকা আফগানিস্তানকে মাটিতে নামিয়ে চার-ছক্কার ফুলঝুরি ছুটিয়ে দলকে জিতিয়েছেন। হয়েছেন ম্যাচসেরা, গড়েছেন একাধিক রেকর্ড। বিসিবি থেকেও জুটেছে বিদায়ী সংবর্ধনা।

মাসাকাদজার জাদুতে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে নিজেদের শেষ ম্যাচে আফগানদের ৭ উইকেটে হারিয়েছে জিম্বাবুয়ে। আফগানদের বিপক্ষে এটিই তাদের প্রথম জয়। ৪১ বলে ৭১ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলে প্রায় দেড় যুগের ক্যারিয়ারের ইতি টেনেছেন মাসাকাদজা। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে বিদায়ী ম্যাচে কোনো ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ রানের ইনিংস এটি।

বিদায়ী ম্যাচে তাকে সম্মাননা দিয়ে বিদায় জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তার হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন সাবেক ক্রিকেটার ও বর্তমান ধারাভাষ্যকার আতহার আলী খান। পাশাপাশি নিজ দেশের বোর্ডের কাছ থেকেও উপহার পান তিনি। বিদায়ী ক্রিকেটারকে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের স্মারক তুলে দেন দলের ম্যানেজার লাভমোর বান্দা।

২০০১ সালে জাতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় মাসাকাদজার। ওই বছরই টেস্টে সর্বকনিষ্ঠ ক্রিকেটার হিসেবে সেঞ্চুরি করার রেকর্ড গড়েন তিনি। কিছু দিন না যেতেই সেটি ভেঙে দেন বাংলাদেশের লিটল মাস্টার মোহাম্মদ আশরাফুল।

১৮ বছরের লম্বা ক্যারিয়ারে ৩৮টি টেস্ট, ২০৯টি ওয়ানডে ও ৬৬টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন মাসাকাদজা। ক্রিকেটের অভিজাত সংস্করণে ৭৬ ইনিংসে ৫ সেঞ্চুরিতে ৩০.০৪ গড়ে ২২২৩ রান করেছেন তিনি। ২০৯টি ওয়ানডেতে সমানসংখ্যক সেঞ্চুরি সহকারে ২৭.৭৩ গড়ে করেছেন ৫৬৫৮ রান। আর ৬৬টি টি-টোয়েন্টিতে ২৫.২৫ গড়ে সংগ্রহ করেছেন ১৬৬২ রান।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply