রিক্সায় ওড়না পেঁচিয়ে মায়ের মৃত্যু,পাশে কাঁদছে শিশু!

|

স্টাফ রিপোর্টার,মানিকগঞ্জ
তিন বছরের লামিয়ার সাথে গল্পগুজব করতে করতে অটোরিক্সায় করে বাড়ি ফিরছিলেন মা আরিফা আক্তার (২২)। কিন্তু কে জানতো বাড়ি ফেরার আগেই মা হারা হবেন শিশু লামিয়া।
এমনই এক ঘটনা ঘটেছে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে মানিকগঞ্জ শহরের ল’ কলেজ এলাকায়। অটোরিক্সার চাকায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে মা আরিফা আক্তারের মৃত্যু হয়। এসময় রিক্সা চালক পালিয়ে গেলে মৃত মায়ের পাশে বসেই কাঁদছিলেন শিশু লামিয়া।

নিহত আরিফা আক্তার মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার বড় সুরুন্ডি গ্রামের হারুন মিয়ার মেয়ে।তার স্বামীর নাম খোকন মিয়া। পেশায় তিনি একজন বাস চালক।

আরিফার চাচাতো ভাই আব্দুর রাজ্জাক জানান, সদর উপজেলার তরা এলাকায় খালার বাড়ি থেকে বিয়ের দাওয়াত খেয়ে একমাত্র মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন আরিফা। শহরের ল’ কলেজ এলাকায় হঠাৎ রিক্সার চাকায় ওড়না পেছিয়ে শ্বাসরোধ হয়ে মারা যান তিনি।আকস্মিক এ ঘটনায় রিক্সা রেখেই চালক পালিয়ে যায়। এসময় মায়ের মৃত দেহের পাশেই বসে কাঁদছিলেন শিশু আরিফা। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। শিশুটির কাছে ঠিকানা জেনে পরিবারের সদস্যদের খবর দেয়া হয়।

মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মোঃ শহিদুর আজম জানান, আরিফাকে হাসপাতালে মৃত অবস্থায় আনা হয়। রিক্সায় চাকায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ হয়ে মারা যান তিনি। তার গলায় কাটা দাগ রয়েছে।









Leave a reply