গণধর্ষণ মামলার বাদীর হাত পা ভেঙে দেয়ার ঘটনায় গ্রেফতার ৪

|

পটুয়াখালী প্রতিনিধি॥
পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় গণধর্ষণ মামলার বাদীকে পিটিয়ে হাত ও পা গুঁড়িয়ে দেয়ার ঘটনায় প্রধান আসামি শাকিলসহ চারজনকে অস্ত্র-মাদকসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা। বুধবার জেলা শহরে আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় আবা‌সিক হো‌টেল পানামা থে‌কে তা‌দের‌কে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন-পটুয়াখালীর ম‌হিপুর থানার চর চাপলী গ্রামের ইমদাদ মৃধার ছেলে ও মামলার প্রধান আসামি শা‌কিল মৃধা, তার সহযোগী একই এলাকার র‌বিউল ভূঁইয়া, র‌বিউল হাওলাদার ও সাইফুল ইসলাম। অভিযান পরিচালনা কালে আসামিদের কাছ থেকে বিদেশি পিস্তল, ওয়ান শুটার গান, ১২ রাউন্ড গু‌লি ও ৩৯০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব-৮ এর উপ-পরিচালক মেজর খান স‌জিবুল ইসলা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

র‌্যাব জানায়, সম্প্রতি এই আসামিরা জেল খেটে জামিনে মুক্ত হয়। এরপর গত মঙ্গলবার রাতে কলাপাড়া উপজেলার মহিপুরের চাপলি বাজারে গণধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূর স্বামী ও মামলার বাদী ছিদ্দিকুর রহমানের ওপর হামলা চালায়। এসময় আসামিরা লোহার রড দিয়ে ছিদ্দিকের দুই পা গুড়িয়ে দেয়। এর আগে মামলা উঠাতে আসামিরা কয়েকবার বাদীর বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়েছে। মামলা উঠাতে না পারায় আসামিরা ছিদ্দিকের নামে একটি হয়রানিমূলক মামলাও দায়ের করেন বলে ছিদ্দিকের পরিবারের দাবি।

র‌্যাব-৮ এর উপ-অধিনায়ক মেজর খান সজিবুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা র‌্যাবের কাছে সি‌দ্দিক‌কে আহত করার ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারের ঘটনায় র‌্যাবের ডিএডি দেলোয়ার হোসেন বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে মহিপুর থানায় পৃথক মামলা দায়ের করেছেন।









Leave a reply