অদল-বদলে কাটবে ব্যাডপ্যাচ?

|

ব্যাডপ্যাচ থেকে যেন বেরই হতে পারছে না বাংলাদেশ। ব্যাটিং ডিপার্টমেন্টের জীর্ণ পারফরম্যান্স প্রতিদিনই দৃষ্টিকটু রূপ নিচ্ছে। তাই অনেকটা বাধ্য হয়েই সিরিজের মাঝ পথে দলে ব্যাপক পরিবর্তন। নতুন করে দলে ডাক পেয়েছেন ৫ ক্রিকেটার। রুবেল হোসেন ও শফিউল ইসলাম পরীক্ষিত হলেও নাজমুল শান্ত, নাইম ইসলাম ও অলরাউন্ডার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব নতুন প্রজন্মের ক্রিকেটার। আকস্মিক ডাকে তারা কেন দলে? এমন প্রশ্নে, নির্বাচক মিনহাজ আবেদীন নান্নুর উত্তর, এটা নাকি আগেই নির্বাচকদের ভাবনায় ছিল। তবে, বাংলাদেশের দল বদলে আসলেই কতটা পরিকল্পনার ছাপ আছে সেটি নিয়ে প্রশ্ন তোলাই যায়।

এশিয়া কাপের বাজে পারফরম্যান্সের পর দল থেকে বাদ পড়েন টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান নাজমুল শান্ত। এরপর ঢাকা লিগে ১৬ ম্যাচে ৫৪২ রান করেন। এ দল ও এইচপির জার্সিতে তার পারফম্যান্স ছিল দুর্দান্ত। সবশেষ পাঁচ ইনিংসে ৯২.৫ গড়ে করেছেন ৩৭০ রান।
অন্যদিকে, ঢাকা লিগটা দুর্দান্ত কেটেছে ওপেনার নাঈম শেখের। ১৬ ম্যাচে ৫৩.৮০ গড়ে ৮০৭ রান করেন তিনি। আবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে এইচপি সিরিজের পর থেকে কেনো জানি ছন্দহীন তিনি। সবশেষ পাঁচ ইনিংস ১১.২ গড়ে মাত্র ৫৬ রান তার।

আরেক নতুন আমিনুল ইসলাম বিপ্লব ঢাকা লিগে ৪০ গড়ে ৪৪০ রান করে ডাক পান এইচপিতে। তবে নেটে তার লেগ স্পিনে মুগ্ধ হয়ে এরই মধ্যে নাকি আগামীর জাতীয় দলের একজন হিসেবে দেখতে শুরু করেছে বোর্ড। ফতুল্লায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে (০/৩৭) খেলেছেন। ফিঙ্গার স্পিনার ভর্তি এক দলে আমিনুলের মতো লেগ স্পিনারের অন্তর্ভুক্তিও আশাজাগানিয়া। কিন্তু লিস্ট ‘এ’-তে ১৯ ম্যাচে ৩ উইকেট এবং দুটি টি-টোয়েন্টি খেলে বল হাতে না নেওয়া তো সাক্ষ্য দিচ্ছে আমিনুল একজন পার্টটাইমার! এটাও ঠিক জাতীয় দলে একজন লেগ স্পিনার দরকার। সেজন্যই কিনা ঘরোয়া ক্রিকেট কিংবা ইমার্জিং দলের হয়েও বল হাতে কিছু করে দেখাতে না পারা আমিনুলকেই দলে এনে চমক দেয়ার চেষ্টা করেছেন নির্বাচকরা। কিন্তু মূল একাদশে ঠাঁই হবে আমিনুলের?

প্রশ্নটা উঠছে, কারণ কোনো ম্যাচ না খেলেই বাদ পড়েছেন তিন ক্রিকেটার- শেখ মেহেদী হাসান, ইয়াসির আরাফাত মিশু ও আবু হায়দার রনি। নাইম, শান্ত কিংবা বিপ্লবদের জন্যও অপেক্ষা করছে একই পরিণতি?

কোনো ম্যাচ না খেলেই বাদ পড়ায় যদি মেহেদী-মিশুদের আক্ষেপ থাকে, তো আবু হায়দার রনির কী অনুভূতি হওয়া উচিত? দলে তার নাম ঘোষণা হওয়ার পর নতুন কোনো অনুশীলন সেশন কাটানোর আগেই যে আবার বাদ পড়েছেন!

বুধবার চট্টগ্রামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে নিজেদের তৃতীয় টি টোয়েন্টি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। এত অদল বদলে দলে কতটা ছন্দ ফেরে সেটিই এখন দেখার বিষয়।

বাংলাদেশ দল:
সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন, লিটন দাস, আফিফ হোসেন, তাইজুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, শফিউল ইসলাম, মোস্তাফিজুর রহমান, সাইফউদ্দীন, নাঈম শেখ, আমিনুল বিপ্লব ও নাজমুল হোসেন শান্ত।









Leave a reply