আখাউড়ায় ছেলে হত্যার বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন

|

আখাউড়া সংবাদদাতা:

আখাউড়া নিরাপত্তা বাহিনী (আরএনবি) সদস্য প্রীতম ভট্টাচার্যকে আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে ফেলে হত্যাকাণ্ডের বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন তার পরিবার।

শনিবার দুপুরে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে নিহত প্রীতমের বাবা প্রাণকৃষ্ণ ভট্টাচার্য অভিযোগ করে বলেন, ২০১৮ সালের ২৮ আগস্ট রাতে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশন থেকে বদলি দায়িত্ব নিয়ে প্রীতম আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনে ডিউটিতে যায়।

আন্তঃনগর উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেনে আখাউড়া থেকে চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত তার দায়িত্ব ছিল। পথিমধ্যে সীতাকুণ্ড রেলওয়ে স্টেশনের বারৈয়াঢালা ৪৪/০২/০৩ রেলওয়ে কিলোমিটার সিগন্যাল এলাকায় চলন্ত ট্রেন থেকে প্রীতমকে ফেলে দেয়া হয়।

পরে তাকে উদ্ধার করে আইসিউতে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় ৮ দিন পর তার মৃত্যু হয়।
প্রাণকৃষ্ণ ভট্টাচার্য বলেন, প্রীতমের চিকিৎসা চালাতে গিয়ে ৩৮ লাখ টাকা খরচ করেও আমার ছেলেকে বাচাতে পারিনি। আমি এখন সর্বস্বান্ত।

আমার ছেলের হত্যাকাণ্ডের বিচার চাওয়ায় ছোট ছেলে নিরাপত্তা সদস্য রানা ভট্টাচার্যকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে ছেলে প্রীতম হত্যার দ্রুত বিচার ও ছেলের চাকরিতে ফিরিয়ে নেয়াসহ আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হওয়া অর্থ ফেরত পাওয়ার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী পরিবার।









Leave a reply