কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের বক্তব্যে জাবির প্রতিবাদ

|

জাবি প্রতিনিধি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পের দুর্নীতি নিয়ে এবার শুরু হয়েছে নতুন গুঞ্জন। এতদিন বিভিন্ন গণমাধ্যমে উপাচার্যের মধ্যস্থতায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ ও বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে দুই কোটি টাকা ভাগ করে দেয়ার অভিযোগের মধ্যে উঠেছিল। এরমধ্যেই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর একটি বিবৃতি বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। যেখানে তিনি দাবি করেন ‘বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে ১ কোটি ৬০ লাখ টাকা দেয়া হয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরী হলে তারা উপাচার্যের সাথে দেখা করেন। কিন্তু টাকার বিষয়ে তারা কিছু জানেন না।’

গোলাম রাব্বানীর এই বক্তব্য সম্পূর্ণ অসত্য ও মিথ্যা দাবি করে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ। শাখা ছাত্রলীগের উপ- দপ্তর সম্পাদক এম মাইনুল হোসাইন স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে বলা হয়, ১২ ও ১৩ সেপ্টেম্বর বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সম্পর্কে যেসব তথ্য পেয়েছেন এবং সেই তথ্যের ভিত্তিতে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে যে বিবৃতি প্রদান করেছেন তা সম্পূর্ণ অসত্য। ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উক্ত তথ্যের সত্যতা যাচাইয়ের উদ্দেশ্যে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সাথে কোন প্রকার আলোচনা করেননি।

বিবৃতিতে বলা হয়, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি- সাধারণ সম্পাদকের নির্দেশে ৮ আগস্ট উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলামের সাথে বৈঠকের আয়োজন করা হয়। উক্ত বৈঠকের আলোচ্যসূচি সম্পর্কে বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক অবগত ছিলেন না এবং তারা উপস্থিতও ছিলেন না। এমনকি উপাচার্যের সাথে তাদের কি আলোচনা হয়েছে সে সম্পর্কেও তারা জানেন না। ফলে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে নিয়ে যে মিথ্যাচার করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।









Leave a reply