চুয়াডাঙ্গায় বিএসএফ’র গুলিতে নিহত বাংলাদেশীর মরদেহ হস্তান্তর

|

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি:

চুয়াডাঙ্গার রাজাপুর সীমান্তে বিএসএফ এর গুলিতে নিহত বাংলাদেশী নাগরিক নাজিম উদ্দীনের (৩৪) লাশ ফেরত দিয়েছে বিএসএফ। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার জয়নগর সীমান্তের জিরো পয়েন্টে দু’দেশের সীমান্তরক্ষীদের মধ্যে পতাকা বৈঠকের পর নিহত নাজিমের লাশ বিজিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

পতাকা বৈঠকের সময় বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন, ৫৮ বিজিবির ধোপাখালী বিওপি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার রেজাউল করিম, জীবননগর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) ফেরদৌস ওয়াহিদসহ ১০ জন। ভারতের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন গেদে বিএসএফ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসি সৌরভ সামন্ত সহ ১০ জন সদস্য।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ৫৮ বিজিবির সহকারী পরিচালক নজরুল ইসলাম খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বাংলাদেশী নাগরিক নিহতের ঘটনায় কড়া প্রতিবাদ ও লাশ ফেরত চেয়ে পত্র চেয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বিএসএফকে পত্র প্রেরণ করা হয়। এরপর বিএসএফ নিহতের লাশ হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু করে।

জীবননগর থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত ফেরদৌস ওয়াহিদ জানান, বিজিবির কাছে নিহত নাজিমের লাশ হস্তান্তরের পর পুলিশের মাধ্যমে নিহতের পরিবারের কাছে রাতেই লাশ বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত. বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) রাতে নাজিম উদ্দীনসহ ৭/৮ জন গরু ব্যবসায়ী চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার রাজাপুর সীমান্তে গেলে ভারতের গেদে আমতলা বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। এতে নাজিম উদ্দীন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। পরে বিএসএফ সদস্যরা তার লাশ টেনে হেঁচড়ে ভারতের অভ্যন্তরে নিয়ে যায়।
এরপর বিএসএফ নিহতের লাশ কৃষ্ণনগর থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়। ওইদিনই কৃষ্ণনগর হাসপাতালে তার লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়।









Leave a reply