আসামের চূড়ান্ত নাগরিকত্ব তালিকা নিয়ে খুশি নয় বিজেপি-কংগ্রেস

|

আসামে গতকাল চূড়ান্ত নাগরিকত্ব তালিকা প্রকাশ করা হয়। এতে বাদ পড়েছেন ১৯ লাখ মানুষ। বাদ পড়াদের মধ্যে চরম আতংক বিরাজ করছে। ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তারা। এদিকে, নাগরিকত্ব তালিকা নিয়ে খুশি হন নি শাসক দল বিজেপি ও বিরোধী দল কংগ্রেস। দুই দলই মনে করছে, বিদেশিরা নাগরিকত্ব পেয়ে গেছে। আর আসামের বাসিন্দারা বিদেশি হয়ে গেছে।

নাগরিকত্ব তালিকা প্রকাশের পরপরই এর সমালোচনা করেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা। এই তালিকাকে চক্রান্ত বলে অবিহিত করেছেন বিজেপি বিধায়ক শিলদিত্য দেব। একই কথা বলেছেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ।

হিমন্ত বিশ্বশর্মা এক টুইট বার্তায় বলেন, ১৯৭১ সালের আগে শরণার্থী পরিচয়ে যারা বাংলাদেশ থেকে এদেশে এসেছিলেন, নাগরিকপঞ্জিতে তাদের নাম নেই। বহু প্রকৃত ভারতীয়ই তালিকার বাইরে থেকে গিয়েছেন। অনেকেই অভিযোগ করেছেন যে তথ্য জালিয়াতি করে নাগরিকপঞ্জিতে নিজের নাম তোলা হয়েছে। এটা কীভাবে সম্ভব? বৈধ নাগরিকদের চিহ্নিত করা এবং অনুপ্রবেশকারীদের বাতিল করার ক্ষেত্রে এই তালিকা আদৌ কাজে লাগবে ? প্রশ্ন তুলেছেন হিমন্ত। একই সঙ্গে লিখেছেন যে ওই তালিকার ওপর তিনি ভরসা রাখছেন না।

বিজেপি বিধায়ক শিলদিত্য দেব বলেন, দুর্নীতি করে তৈরি করা হয়েছে নাগরিক পঞ্জি। মানুষ চেয়েছিলো অধিকার রক্ষার লক্ষ্যে ত্রুটিমুক্ত নাগরিকপঞ্জি তৈরি হোক, কিন্তু আদতে তা হয়নি।

প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তরুণ গগৈ বলেন, নাগরিকপঞ্জি নিয়ে আসামের সকলেই অসন্তুষ্ট। বিজেপির মন্ত্রীরাও অভিযোগ করছেন। একেবারে দায়িত্বজ্ঞানহীনভাবে তালিকা তৈরি করা হয়েছে। বহু ভারতীয় নাগরিকদের আদালতের দরজায় যেতে হবে। সবরকম সহযোগিতা করবে কংগ্রেস। দেশই আমাদের অগ্রাধিকার।









Leave a reply