মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টের সাথে বৈঠক বাতিল করলেন কপটিক পোপ

|

যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার প্রতিবাদে মিশরীয় কপটিক চার্চের পোপ দ্বিতীয় তাওয়াদ্রুস মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের সাথে নির্ধারিত বৈঠক বাতিল করেছেন। মধ্যপ্রাচ্য সফরের সময় আগামী ২০ ডিসেম্বর উভয়ের মধ্যে বৈঠক হওয়ার কথা ছিল।

গতকাল শনিবার কপটিক চার্চের এক বিবৃতিতে পোপের এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। একই দিন ফিলিস্তিনি নেতারাও ঘোষণা দেন, পেন্সের সাথে তারা পূর্ব নির্ধারিত বৈঠকে অংশ নেবেন না।

পোপ দ্বিতীয় তাওয়াদ্রুস তার বিবৃতিতে বলেন, ট্রাম্পের নিজের সিদ্ধান্তের আগে আরব জনগণের অনুভূতিকে আমলে নেননি। এর আগে মিশরের বিখ্যাত আল আজহার মসজিদের প্রধান ইমাম শেখ আহমদ আল তাইয়েবও মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্টের সাথে নির্ধারিত বৈঠক বাতিল করেন।

গত বুধবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে ঘোষণা দেন, যুক্তরাষ্ট্র ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে স্বীকৃতি দিয়েছে, এবং শিগগিরই তেলাবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরের কাজ শুরু হবে। ট্রাম্পের বিতর্কিত এই ঘোষণায় নিন্দার ঝড় ওঠে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদও কড়া ভাষায় যুক্তরাষ্ট্রের এই পদক্ষেপের নিন্দা জানিয়েছে।

প্রসঙ্গত, কপটিক পোপ হলেন মিশরীয় খ্রিষ্টানদের প্রধান ধর্মগুরু। যিশুখ্রিষ্টের মৃত্যুর ৪২ থেকে ৬২ বছরের মধ্যে কোনো এক সময়ে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে মতবিরোধের জেরে খ্রিষ্টধর্মের মূল ধারা থেকে মিশরীয় খ্রিষ্টানদের একটি অংশ বের হয়ে যান, তাদেরকেই কপটিক খ্রিষ্টান বলা হয়। এটি খ্রিষ্টধর্মের প্রথম বড় কোনো বিভাজন। মিশরে কপটিক খ্রিষ্টানদের সংখ্যা ৮৩ লাখের মতো। এছাড়া বিশ্বব্যাপী এই সংখ্যা দেড় কোটিরও বেশি।





সম্পর্কিত আরও পড়ুন







Leave a reply