সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন চায় ইইউ

|

সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের তাগিদ দিয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। ১০ ডিসেম্বর বিশ্ব মানবাধিকার দিবসকে সামনে রেখে আজ শনিবার দেয়া এক বিবৃতিতে নিজেদের এই অবস্থান ব্যক্ত করেছে সংস্থাটি।

একই সাথে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর অধিকার সুরক্ষায় বাংলাদেশের পদক্ষেপ অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানানো হয়েছে ইইউ’র ঢাকা দূতাবাস থেকে প্রকাশিত এই বিবৃতিতে।

ইইউ বলেছে, সার্বজনীন মানবাধিকার ঘোষণার প্রায় ৭০ বছর পার করেও সংস্কৃতি, ধর্ম আর জাতিগত পার্থক্যের কারণে মানুষের অধিকার ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। বিপন্ন রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর বাস্তবতা বারবার বিশ্বকে সে কথা মনে করিয়ে দিচ্ছে। রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সুরক্ষার প্রশ্নে নিজেদের সোচ্চার অবস্থানের কথা পুনর্ব্যক্ত করেছে ওই সংস্থা। ওই জনগোষ্ঠীর মানুষের অধিকার রক্ষায় বাংলাদেশের অব্যাহত প্রচেষ্টার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে তা অব্যাহত রাখার অনুরোধ জানিয়েছে সংস্থাটি।

বিবৃতিতে বলা হয়, ২০০১ সালে স্বাক্ষরিত বাংলাদেশ-ইইউ সহযোগিতা চুক্তিতে দুই পক্ষই জাতিসংঘ সনদ মেনে মানবাধিকার সুরক্ষার মূলনীতিগুলোর গুরুত্বের ব্যাপারে একমত হয়েছিল। মানুষের মর্যাদা, স্বাধীনতা, গণতন্ত্র, বৈষম্যহীনতা, আইনের শাসন এবং মানবাধিকার দুই পক্ষের কাজের ভিত্তি।

এতে আরও বলা হয়েছে, ইইউ দৃঢ়ভাবে মনে করে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে মানবাধিকার ও গণতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। এজন্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে গণতান্ত্রিক নির্বাচনের আন্তর্জাতিক মান অনুযায়ী একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের আহ্বান জানানো হয়েছে।









Leave a reply