জেরুজালেমকে স্বীকৃতির প্রতিবাদ জানালেন ইহুদিরাও

|

যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার প্রতিবাদ হচ্ছে বিশ্বজুড়ে। এবার এই প্রতিবাদে যোগ দিলেন খোদ ইহুদি ধর্মের অনুসারীদের অনেকে।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের বৈষম্যমূলক সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে গতকাল শুক্রবার নিউইয়র্কে জড়ো হন ইহুদি ধর্মের অনুসারীদের বেশ কিছু সদস্য। এসময় তারা বিভিন্ন বক্তব্য লেখা প্ল্যাকার্ড বহন করছিলেন। আনাদলু এজেন্সির প্রকাশিত একাধিক ছবিতে দেখা যাচ্ছে, একজন ইহুদী রাব্বি একটি প্ল্যাকার্ড ধরে দাঁড়িয়েছেন, যাতে লেখা রয়েছে, ‘মি. ট্রাম্প, ইসরায়েল রাষ্ট্রটি পবিত্র ভূমিকে চুরি করে নিয়েছে। জেরুজালেম যেমন আছে সেটিকে তেমনই থাকতে দেন।’

জেরুজালেম নগরী ইহুদি, মুসলিম ও খ্রিষ্টান- তিন ধর্মের মানুষের কাছেই ‘পবিত্র নগরী’ হিসেবে গণ্য হয়ে থাকে।

নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদরদপ্তের সামনে এ বিক্ষোভের আয়োজন করেন ‘নেতুরি কার্তা’ নামে পরিচিত ইহুদিদের একটি গ্রুপ। তারা ইসরায়েল রাষ্ট্রে মূলমন্ত্র ‘জায়োনিজম’ বা ‘ইহুদিবাদ’ এর বিরোধী। ‘ইহুদিবাদ’ হচ্ছে ইহুদি ধর্মের অনুসারীদের জন্য একটি স্বতন্ত্র রাষ্ট্র গড়ার আন্দোলন।

প্রতিবাদে অংশ নেয়াদের হাতে আরও যেসব প্ল্যাকার্ড ছিল তাতে লেখা রয়েছে, ‘পবিত্র ভূমির কোনো অংশের শাসন চালানোর কোনো অধিকার ইসরায়েলের নেই।’ ‘ইহুদি ধর্ম ইসরায়েল রাষ্ট্রের ধারণাকেই প্রত্যাখ্যান করে’ লেখা প্ল্যাকার্ডও দেখা যায় একজনের হাতে।

গত বুধবার জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে একতরফা স্বীকৃতি দেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। দু’দিন পর হোয়াইট হাউজের সামনেই ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানিয়ে জুমার নামাজ আদায় করলেন ওয়াশিংটনের কয়েকশ’ মুসলিম।

ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের সদরদপ্তরের সামনে ইহুদি ধর্মের অনুসারীদের বিক্ষোভ

ট্রাম্প প্রশাসনের পক্ষপাতিত্বে প্রকৃতপক্ষে ফুঁসে উঠেছে পুরো বিশ্ব। আরব রাষ্ট্রগুলোর পাশাপাশি, যুক্তরাজ্য, জার্মানি, কেনিয়া, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, পাকিস্তান, আফগানিস্তানসহ ইউরোপ-এশিয়ার দেশে দেশে গত দুই দিন বিক্ষোভ করেছেন লাখো মানুষ।


সম্পর্কিত আরও পড়ুন





Leave a reply